এখন পড়ছেন
খবর

১৩ দফার আন্দোলন আছে, ভবিষ্যতেও চলবে: হেফাজত

hiহেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগরের নেতারা বলেছেন, বর্তমান সরকারের মিথ্যা মামলা, হয়রারি, জেল-জুলুম কিছুই নবীপ্রেমিক জনতাকে ১৩ দফার আন্দোলন থেকে বিরত রাখতে পারবে না। ১৩ দফার আন্দোলন ছিল, আছে এবং ভবিষ্যতেও চলবে।

সোমবার কাকরাইল দারুল উলূম মাদরাসা হলরুমে হেফাজতে ইসলাম ঢাকা মহানগরীর এক জরুরী সভায় নেতারা এসব কথা বলেন।

তারা বলেন, সরকার চারজন নাস্তিক ব্লগারকে গ্রেপ্তারের নাটক সাজিয়ে এতোদিন তাদের সরকারি পয়সায় জামাই আদরে আপ্যায়ন করে অবশেষে তাদের থেকে দুইজনকে জামিন দিয়ে মুসলমানদের সাথে প্রতারণা করেছে।

হেফাজত নেতারা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, এই প্রতারণার জবাব ঈমানি চেতনায় উজ্জেবিত দেশপ্রেমিক জনগণ একদিন অবশ্যই দিবে।

তারা অভিযোগ করে বলেন, ‘রাতের আঁধারে গণহত্যা চালিয়ে হাজার হাজার মুসলমানকে শহীদ করে জালিম সরকারের রক্তপিপাসা মেটেনি, এখনও বিভিন্ন হাসপাতালে সেদিনের ভয়াবহ হামলায় আহত চিকিৎসাধীন অসহায় রোগীদের ওপর সরকারের হিংস্র ক্যাডাররা হামলা করছে।’

হাসপাতালে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হয়েছে দাবি করে হেফাজত নেতারা বলেন, ‘ভীত-সন্ত্রস্ত অনেক গুরুতর রোগী সরকারদলীয় ক্যাডার ও পুলিশি হয়রানির আতঙ্কে চিকিৎসা না নিয়েই হাসপাতাল ছেড়ে আত্মগোপনে চলে গেছেন।’

‘চিকিৎসার অভাবে তাদের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে পঁচন ধরতে শুরু করেছে। অনেকে চোখ হারিয়ে অন্ধ হয়ে যাচ্ছেন। অনেকে শরীর বুলেটের স্প্রিন্টার নিয়ে স্থায়ী পঙ্গুত্ব বরণ করে নিচ্ছেন। যা সভ্য কোনো দেশে কল্পনা করাও কঠিন’ বলেন হেফাজত নেতারা।

এছাড়াও হেফাজত নেতারা বলেন, ‘সরকার ঘেষা কয়েকটি চ্যানেল ও পত্র-পত্রিকায় হেফাজত মহাসচিব মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরীর বরাত দিয়ে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যদের যেসকল তথ্য, বক্তৃতা-বিবৃতি পরিবেশিত হচ্ছে, তা ডাহা মিথ্যা, বানোয়াট ও কল্পনাপ্রসূত।’

তাদের দাবি, ‘বাবুনগরীর উদ্ধৃতি দিয়ে যেসব কল্পকাহিনীর প্রকাশ করা হচ্ছে। তা শুধুই জনগণকে বিভ্রান্ত করার সরকারী অপকৌশল। আল্লামা বাবুনগরীর এ ধরনের তথ্য দেওয়ার প্রশ্নই আসে না।’

হেফাজত নেতারা নেআরও বলেন, ‘আওয়ামী সরকার ও তার মন্ত্রীরা সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে হেফাজতে ইসলামে নিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন। অর্থমন্ত্রীর মত দায়িত্বশীল ব্যক্তি হেফাজতে ইসলামকে ‘বরবাদে ইসলাম’ আখ্যায়িত করে বক্তব্য দিয়েছেন।’

মাওলানা মাহফুজুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাওলানা আব্দুর রউফ ইউসুফী, মাওলানা শফিক উদ্দীন, মাওলানা সাখাওয়াত হোসাইন, মাওলানা ফজলুল করীম কাসেমী, মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী, মাওলানা জুনায়েদ গুলজার, মাওলানা হাতেম আলী, মাওলানা আবদুর রহমান, মাওলানা খোরশেদ আলম প্রমুখ।

সভায় হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, ঢাকা মহানগরী নেতা মাওলানা মামুনুল হকসহ সকল নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেপ্তারকৃত আশু মুক্তির দাবি জানান।

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

হেফাজতে ইসলামের খবর

https://banglargangai.wordpress.com/wp-admin/widgets.php#available-widgets

ফরহাদ মজহারের কলাম

Join 253 other followers