এখন পড়ছেন
খবর, বিবৃতি

শাপলা অভিযানে গুলিবিদ্ধ আলেমের মৃত্যু, জানাযায় বাধা

hiগত ৫ই মে শাপলা অভিযানে গুলিবিদ্ধ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছিলেন যশোরে হাফেজ মোয়াজ্জেমুল হক নান্নু। গতকাল বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে রাজধানীর লালমাটিয়ার আল মানার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তার পরিবার জানায়, হাফেজ মোয়াজ্জেমুল হক নান্নু যশোর শহরের খড়কী এলাকার বাসিন্দা। আজ সকালে যশোরে তার নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। জানাযায় অল্প কিছু সংখ্যক লোক উপস্থিত ছিলো। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে নান্নুর নামাজে জানাযা সকাল সাড়ে ৭টায় স্থানীয় ঈদগাহ ময়দানে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো।

সে মোতাবেক গতরাতে এশার নামাজ শেষে বিভিন্ন মসজিদে ঘোষনাও দেয়া হয়। ঈদগাহ ময়দানে জানাযার জন্য জেলা হেফাজত ইসলামীর পক্ষ থেকেও সব রকমের প্রস্তুতি নেয়া হয়। কিন্তু ভোরে নান্নুর পরিবারের সদস্য ও হেফাজতের কর্মীরা ঈদগাহ ময়দানে মাইক টাঙাতে গেলে পুলিশ তাদের বাঁধা দেয়। পুলিশ জানায়, ঈদগাহ ময়দানে নান্নুর জানাযা করা যাবে না। উর্ধ্বতন মহলের নিষেধ আছে। এক পর্যায়ে হেফাজত কর্মী ও নান্নুর পরিবারের সদস্যরা জোর করে মাইক টাঙাতে গেলে পুলিশ মাইক কেড়ে নেয়। পরে পুলিশের মধ্যস্থতায় নান্নুর পরিবার যশোর সরকারী এম এম কলেজ মাঠে জানাযার নামাজের আয়োজন করে। কিন্তু সেখানেও পুলিশ কোন মাইক ব্যবহার করতে দেয়নি বলে  নিহতের স্বজনরা অভিযোগ করেন। তারা জানান, পুলিশ শুধু মাইক বন্ধ করেই ক্ষান্ত হয়নি, জানাযায় আগত মানুষকেও কলেজ মাঠে প্রবেশে বাঁধা দিয়েছে। সাদা পোষাকের পুলিশ এম এম কলেজের উভয় প্রবেশ দ্বারে অবস্থান নিয়ে জানাযায় অংশ নিতে আসা লোকদের প্রবেশে বাঁধা দিয়ে ফেরত পাঠিয়েছে বলেও অনেকে অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে এম এম কলেজের প্রবেশ মুখে দায়িত্বরত সাদা পোষাকের একজন পুলিশ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, লাশ নিয়ে হৈচৈ হতে পারে, হেফাজত কর্মীরা লাশ নিয়ে রাজনীতি করতে পারে, শহরে মিছিল করতে পারে, মাইকে গরম গরম বক্তৃতা দিয়ে জনগণকে বিভ্রান্ত করতে পারে বলে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ মাইক ব্যবহার করতে নিষেধ করেছেন। এছাড়া জানাযায় তো সবার যাওয়ার দরকার নেই। কিছু লোক গেলেই তো হয়। এই কারনে সবাইকে অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। কারন একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে যত কম লোক যাওয়া যায় ততোই ভালো। বেশী লোক এক জায়গায় জড়ো হলে কোন অঘটন ঘটতে পারে বলে পুলিশ সতর্কমূলক ব্যবস্থা হিসেবে এই বিধি নিষেধ আরোপ করেছে। এদিকে নামাজে জানাযা শেষে পুলিশ প্রহরায় হাফেজ মোয়াজ্জেম হোসেন নান্নুর লাশ খড়কী কবর স্থানে দাফন করা হয়েছে। আর এই সমস্ত কাজই শেষ হয়েছে সকাল ৭টার আগেই।

এদিকে নিহতের পরিবারের অভিযোগ তাদের অনেক আতœীয় স্বজন শেষ বারের মতো নান্নুর মৃত মুখ খানি দেখার জন্য অনুরোধ করায় তারা লাশের দাফন একটু দেরিতে করার জন্য পুলিশের প্রতি অনুরোধ করেছিলেন। কিন্তু পুলিশ অনেকটা তড়িঘড়ি করে লাশ দাফন করায় অনেকে শেষ বারের মতো নান্নুর মুখটি দেখতে পারেননি। এদিকে হেফাজতের নেতাকর্মীরা অভিযোগ করেছেন, নান্নুর নামাজে জানাযা নিয়ে পুলিশ যা করেছে তা রীতিমতো ধর্মের প্রতি আঘাত। পুলিশ জানাযায় মাইক ব্যবহার করতে দেয়নি। দলীয় নেতাকর্মীদের জানাযায় অংশ নিতে বাঁধা দিয়েছে। তবে কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইমদাদুল হক এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি জানান, নিহত নান্নুর পরিবারের ইচ্ছা মতো সব কিছু হয়েছে। তারা চায়নি বলে ঈদগাহ ময়দানে নান্নুর নামাজে জানাযা হয়নি। মাইক ব্যবহার করা হয়নি। এ ব্যাপারে পুলিশকে দোষারোপ করে কোন লাভ নেই। তবে হ্যা, এটা সত্যি, হেফাজত এই লাশ নিয়ে যে রাজনীতি করতে চেয়েছিলো পুলিশ সেটা করতে দেয়নি। কারন বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর।

উল্লেখ্য, গত ৪ মে হাফেজ নান্নু হেফাজতে ইসলামের ডাকা ঢাকা অবরোধ কর্মসুচিতে অংশ নিতে ঢাকা যান। ৫ই মে রাতে তিনি অন্যদের মতো শাপলা চত্বরে অবস্থান করছিলেন। রাত আড়াইটার দিকে ‘অপারেশন সিকিউরড শাপলা ওয়াচ’ এ তিনি গুলিবিদ্ধ হন। সেখানে মৃতপ্রায় পড়ে থাকার পর সকালে স্থানীয়রা তাকে প্রথমে ইসলামিয়া হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসকরা জানান, হাফেজ নান্নুর পিঠে ও বুকে দুটি গুলি লাগে। ইসলামিয়া হাসপাতালে তার অবস্থার  উন্নতি না হওয়ায় পরদিন তাকে নিয়ে যাওয়া হয় রাজধানীর লালমাটিয়ার আল মানার হাসপাতালে। সেখানকার চিকিৎসকরা তার বুকে ও পিঠে বিদ্ধ হওয়া গুলি দুটি অপারেশন করে বের করতে ব্যর্থ হন। শেষে আজ বিকেলে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

হেফাজতে ইসলামের খবর

https://banglargangai.wordpress.com/wp-admin/widgets.php#available-widgets

ফরহাদ মজহারের কলাম

Join 253 other followers