এখন পড়ছেন
খবর

বাধা আসলে ৫ মে হবে সরকারের শেষদিন: রাজশাহীতে হেফাজত

6794_1আগামী ৫ মে হেফাজতে ইসলামের ঢাকা অবরোধ কর্মসূচিতে বাধা দিলে ওই দিনই সরকারের শেষদিন হবে বলে সরকারকে হুঁশিয়ার করে দিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা।

তারা বলেছেন, তাদের এই আন্দোলন কাউকে ক্ষমতা থেকে সরানো বা কাউকে ক্ষমতায় বসানোর জন্য নয়। এই আন্দোলন ইসলাম বিদ্বেষী নাস্তিক ও মুরতাদদের বিরুদ্ধে। এ দেশে নাস্তিকদের বিচার না কেউ ক্ষমতায় টিকে থাকতে পারবে না।

হেফাজতের নেতারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী তার কথা অনুযায়ী মদিনা সনদ বাস্তবায়ন করলে আগে শ্রমিকদের ন্যায্য পাওনা ও তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে।

সোমবার রাজশাহী নগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা ময়দানে অনুষ্ঠিত রাজশাহী বিভাগীয় মহাসমাবেশে তারা এসব কথা বলেন।

সংবিধানে ‘আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস’ পুনস্থাপন, আল্লাহ ও রাসুল (সা.) এর অবমাননাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে সংসদে আইন পাসসহ ১৩ দফা দাবিতে এই মহাসমাবেশের আয়োজন করা হয়।

সকাল ১০টায় মহানগরীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে মহাসমাবেশ কর্মসূচি শুরু হয়। সমাবেশ শুরুর আগে রাজশাহী বিভাগের বিভিন্ন জেলা থেকে দলে দলে হেফজতের কর্মী-সমর্থকরা মিছিল নিয়ে মাদ্রাসা ময়দানে আসতে শুরু করে।

প্রথম দফায় বিভিন্ন জেলার নেতারা এই মহাসমাবেশে বক্তব্য দেন। বিকেলে দ্বিতীয় পর্বের মহাসমাবেশের স্থান মাদ্রাসা মাঠ ছাড়িয়ে লোকজন আশেপাশের এলাকায় অবস্থান নেয়।

হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মওলানা জুনায়েদ আল হাবীব বলেন, সাভারের রানা প্লাজায় চাপাপড়াদের উদ্ধারে সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে। এই ব্যর্থতা স্বীকার করলে হেফাজতের কর্মীরা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাদের উদ্ধার করে  দেখিয়ে দিতো।

হেফাজতের একটি  দাবিও সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক নয় দাবি করে তিনি বলেন, প্রয়োজন সংসদে গিয়ে সংবিধান সংশোধন করে এইসব দাবি মানতে হবে। হেফাজতের দাবি মানা হলে আগামী ৫ মে সরকার পতন ঘটানো হবে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনে মহাপরিচালক শামীম আফজালকে মুরতাদ আখ্যা দেন হেফাজতের এই নেতা।

তিনি বলেন, দৈনিক আমার দেশের সম্পাদক মাহমুদুর রহমান মুসলিম জাতির কণ্ঠস্বর। তাকে সরকার গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতন করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রীকে হুঁশিয়ার করে দিয়ে জুনায়েদ হাবীব বলেন, মাহমুদুর রহমানের কিছু হলে বাংলার ঘরে ঘরে আগুন জ্বালিয়ে দেয়া‌ হবে।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আপনি ঘুঘু দেখেছেন, ফাঁদ দেখেননি। প্রশাসন দিয়ে হেফাজতের আন্দোলন দমানোর চেষ্টা করা হলে প্রশাসনও থাকবে না।’

বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ উল্লেখ করে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে জুনায়েদ হাবীব বলেন, ‘আল্লামা শফী যদি আপনাদের নির্দেশ দিতে নাও পারেন, তাহলে আপনারা যার যা আছে তা-ই নিয়ে নাস্তিক ও মুরতাদদের মোকাবেলা করুন।’

হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেন, ‘আমরা ক্ষমতায় বসতে চাই না, কিন্তু ক্ষমতায় বসে নাস্তিকদের বিচার না করলে সরকারের পিঠের চামড়া থাকবে না। গদি রক্ষা করতে হলে হেফাজতের ১৩ দফা দাবি মেনে নিন।’

হেফাজতের নায়েব আমীর মুফতি ইজহারুল ইসলাম বলেন, ‘মাহমুদুর রহমানকে মুক্তি দিয়ে আমার দেশ পুনরায় প্রকাশের ব্যবস্থা না করলে আগামী ৫ মে হবে সরকারের শেষদিন।’

হেফাজতে ইসলামের রাজশাহী বিভাগের যুগ্ম-মহাসচিব হাফেজ আবদুস সামাদের সভাপতিত্বে এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতা আবদুল লতিফ নেজামী ও শাহ্‌ নূর হোসেন কাসেমী।

এদিকে, আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে সমাবেশস্থলসহ নগরীরর বিভিন্ন পয়েন্টে বিপুলসংখ্যক বিজিবি, র‌্যাব ও পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে গুরুত্বপূর্ণস্থানে বসানো হয় সিসি ক্যামেরা।

মহাসমাবেশে আগতদের জন্য পানি, শসা ও খাবার সরবরাহ করেন জাতীয় ওলামা পার্টিসহ স্থানীয়রা। এছাড়া প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা দেয়ার জন্য স্থাপন করা হয়েছিল মেডিকেল ক্যাম্প

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

হেফাজতে ইসলামের খবর

https://banglargangai.wordpress.com/wp-admin/widgets.php#available-widgets

ফরহাদ মজহারের কলাম

Join 253 other followers