এখন পড়ছেন
খবর

যারা ১৩ দফা সমর্থন করবে, জনগন তাদের মসনদে বসাবে: বরিশালে হেফাজত

hefajat_barishal_pic_barisal_1হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগর কমিটির আহ্বায়ক মাওলানা নূর হোসাইন কাশেমী বলেছেন, “আপনারা ৫ মে ঢাকা অবরোধ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করবেন। যতো বাধাই আসুক আল্লাহর উপর ভরসা রেখে এগিয়ে যাবেন। প্রমাণ করুন, এই দেশ মুমিন মুসলমানের। এই দেশ নাস্তিকদের নয়।”

তিনি বলেন, “১৩ দফা দাবি নিয়ে অপপ্রচার বন্ধ করুন। আগামী নির্বাচন হবে ১৩ দফার নির্বাচন। কোটি মুমিনের দাবি মেনে যারা এই ১৩ দফা সমর্থন করবে, জনগন তাদের মসনদে বসাবে।”

বরিশাল নগরীর ফজলুল হক এভিনিউ চত্বরে ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বেলা ২টায় মহাসমাবেশ শুরু হয়। মহাসমাবেশে আসার পথে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের বাধা দেয়া হয়েছে বলে নেতারা অভিযোগ করেন।

হেফাজতে ইসলাম হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, ১৩ দফা দাবি মানুন, না হয় সরকার পতনের ১ দফা আন্দোলন শুরু হবে। বরিশালে হেফাজতের বিভাগীয় মহাসমাবেশে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মাওলানা আহমেদ আলী কাশেমী এই হুঁশিয়ারি দেন।

এই সরকার দিন বদলের কথা বলে ঈমান বদল করেছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, “নাস্তিকদের পৃষ্ঠপোষকতা করে সরকার দেশকে একটি নাস্তিক রাষ্ট্রে পরিণত করছে। ৫ মে হেফাজতের ঢাকা অবরোধ কর্মসূচিতে যেখানে বাধা দেয়া হবে, সেখানেই প্রতিরোধ করা হবে।”

সরকারকে উদ্দেশ্য করে নূর হোসাইন কাশেমী বলেন, “১৩ দফা দাবির এই আন্দোলন দেশ রক্ষার আন্দোলন, ইমান রক্ষার আন্দোলন। আগামী ৫ মে ঢাকা অবরোধ কর্মসূচি সফল করে তৌহিদী জনতা প্রমাণ করবে এই দাবিই জনতার প্রাণের দাবি। সুতরাং এ নিয়ে হেলাফেলা বন্ধ করুন।”

তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেন, “দেশের জনগণের দাবি বুঝুন, ১৩ দফা মেনে নিন। তা না হলে জনগণের ক্ষোভের আগুনে পুড়তে হবে।”

‘এই আন্দোলন ইসলাম রক্ষার আন্দোলন’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, “সারা দেশে যখন নাস্তিক-মুরতাদরা আমার প্রাণের নবীকে (স.) অসম্মান করছে, সেই মুহূর্তেই আল্লামা শফি সাহেব এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদের ডাক দিয়েছেন।”

দৈনিক আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদকের মুক্তির দাবি করে তিনি বলেন, “অবিলম্বে তাকে মুক্তি দিন। আমার দেশ প্রকাশে বাধা বন্ধ করুন। তা নাহলে এর পরিণাম ভালো হবে না।”

বরিশাল মহানগরের সহ-সভাপতি মাওলানা আবদুল খালেকের উদ্বোধনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে শুরু হয় এ সমাবেশ। সভায় সভাপতিত্ব করবেন বরিশাল মহানগর আমীর মাওলানা ওবায়দুর রহমান মাহবুব।

মহাসমাবেশে যুগ্ম সদস্য সচিব মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী বলেন, “আমার নবী (স.) প্রেমিক ভাইয়ের উপর যদি গুলি চলে, তাহলে পুলিশকে বলবো কতো গুলি আছে হিসাব করেন, আমরা মরতে প্রস্তুত আছি। কিন্তু এরপরও আমার নবীর (স.) অপমান সইবো না।”

কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা মুফতি হাবিবুর রহমান বলেন, “যে দেশে নাস্তিক তসলিমা নাসরিনকে বিতারিত করা হয়েছে সে দেশে নাস্তিক ব্লগারদেরকেও শাস্তি পেতে হবে। তা না হলে প্রমাণ হবে শেখ হাসিনার সরকার নাস্তিক সরকার।”

হেফাজতের ঢাকা মহানগর যুগ্ম আহ্বায়ক মাওলানা সৈয়দ মুজিবর রহমান পেশোয়ারী বলেন, “যারা বলেছেন, হেফাজতে ইসলাম লেজ গুটিয়ে চট্টগ্রাম পালিয়ে গেছে তারা এসে দেখে যান, মাঠে ময়দানে হেফাজত কর্মীরা বীরের বেশেই আছে। আগামী ৫ মে ঢাকায় দেখা হবে আপনাদের সাথে। তখন দেখা যাবে কারা লেজ গুটিয়ে পালিয়ে যায়। আমরা এসেছি ইমান রক্ষার আন্দোলন নিয়ে। আমাদেরকে কোন ধরনের ভয় ভীতি দেখিয়ে লাভ নেই। নবীর (স.) অপমানের জবাব না দিয়ে মাঠ ছাড়বো না।”

হেফাজতে ইসলামের ঢাকা মহানগর উপদেষ্টা আবদুল লতিফ নেজামী বলেন, “আজ ১৩ দফা নিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হচ্ছে। মুসলমানদের নানাভাবে আহত-অপমান করা হচ্ছে। এই ১৩ দফাই স্বাধীনতা রক্ষার কবচ, ঈমান রক্ষার কবচ। এই ১৩ দফার মাধ্যমেই ইমান রক্ষা হবে। তাই সরকারকে বলি, এই দাবি মানুন; অপপ্রচার বন্ধ করুন। তা না হলে ৫মে মাশুল গুনতে হবে।”

ঢাকা মহানগর কমিটির উপদেষ্টা হযরত মাওলানা ইসহাক খান বলেন, “যদি মনে করেন নাস্তিক মুরতাদদের আশ্রয় দিয়ে আপনার গদি রক্ষা হবে তাহলে ভুল করবেন।”

মাওলানা ওবায়দুর রহমানের সমাপনী বক্তব্য ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হয় বরিশাল বিভাগীয় মহাসমাবেশ।

বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি উদ্যোগে খাবার-পানি বিতরণ
সমাবেশে অংশ নিতে নগরী ও এর আশপাশ এলাকা থেকে মিছিল নিয়ে আসেন হেফাজতের কর্মী-সমর্থকরা। সভাস্থলের আশপাশে বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি উদ্যোগে বিতরণ করা হয় শুকনো খাবার, পানি ও জরুরী ওষুধ।

ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ড্যাব) উদ্যোগে সমাবেশস্থলের পাশে বসানো হয় মেডিকেল টিম। সংসদ সদস্য ও বিএনপি নেতা মেজবাহ উদ্দিন ফরহাদের উদ্যেগে নগরীর লঞ্চ ঘাট এলাকায় বিতরণ করা হয় শুকনো খাবার ও পানি। মঞ্চের দক্ষিণ দিকে নগরীর গীর্জা মহল্লার মুখে কয়েকটি ব্যবসায়ী সংগঠনের পক্ষ থেকে বিতরণ করা হয় খাবার ও পানি।

মহাসমাবেশ চলে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত। দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকা থেকে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মী-সমর্থকরা সমাবেশে যোগ দেন।

সমাবেশে আসতে বাধার অভিযোগ
বরিশালের এই মহাসমাবেশে আসতে বাধা দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেন হেফাজতের নেতারা। সংগঠনটির বরিশাল মহানগর শাখার প্রচার সম্পাদক মুফতি সুলতান মাহমুদ বলেন, “কিছু কিছু এলাকা থেকে কর্মীদের আসার পথে বাধা দেয়া হয়েছে। বাধা সত্ত্বেও বহু কর্মী-সমর্থক এসেছেন। দুপুর ২টার আগেই বরিশাল নগরী জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে।”

ভোর থেকেই হেফাজতে ইসলামের কর্মীরা মঞ্চ ও এর আশপাশে এলাকায় অবস্থান নেন। সকাল থেকে দু’দফা বৃষ্টি হলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে রোদ প্রখর হয়ে ওঠে। তপ্ত রোদ মাথায় নিয়েই হেফাজতের নেতাকর্মীরা সমাবেশস্থলে শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান করেন।

সমাবেশকে কেন্দ্র করে নেয়া হয় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা। র‍্যাব, পুলিশ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য মোতায়েন করা হয়।

মাসব্যাপী বিভাগীয় মহাসমাবেশ কর্মসূচি
৬ এপ্রিল ঢাকায় লংমার্চ মহাসমাবেশ থেকেই মাসব্যাপী বিভাগীয় পর্যায়ে শানে রিসালাত (সা.) মহাসমাবেশ কর্মসূচির ঘোষণা দেয়া হয়। হেফাজতের ১৩ দফা দাবি আদায় কর্মসূচি সফল ও জনমত তৈরির লক্ষ্যে এ মহাসমাবেশ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। এরই অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার বরিশালে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হলো।

এর আগে ব্রাক্ষণবাড়িয়া, ময়মনসিংহ ও সিলেটেও হেফাজতের শানে রিসালাত (সা.) মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ১৯ এপ্রিল (শুক্রবার) ফরিদপুরে মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ২০ এপ্রিল খুলনা, ২৬ এপ্রিল চট্টগ্রাম, ২৯ রাজশাহী, ৩০ বগুড়ায়ও হেফাজতের মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

৬ এপ্রিল রাজধানীর মতিঝিলে লংমার্চ মহাসমাবেশে হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী’র লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, “ক্ষমতায় থাকতে হলে ১৩ দফা দাবি মেনেই থাকতে হবে, ক্ষমতায় যেতে হলে এসব দাবি মেনেই যেতে হবে।” ইসলাম ও মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তিকারীদের শাস্তিসহ ১৩ দফা দাবিতে লংমার্চ করে ধর্মীয় সংগঠনটি।

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

হেফাজতে ইসলামের খবর

https://banglargangai.wordpress.com/wp-admin/widgets.php#available-widgets

ফরহাদ মজহারের কলাম

Join 253 other followers