এখন পড়ছেন
খবর

লংমার্চ ঘিরে নানামুখী তৎপরতা

1st-15৬ মার্চ হেফাজতে ইসলামের লংমার্চকে কেন্দ্র করে মুখোমুখি দাড়িয়েছে নানা পক্ষ। লংমার্চ স্থগিত করতে ব্যর্থ সরকার বাঁধা না দেয়ার কথা বললেও  আওয়ামীপন্থী ঘাদানিক কমিটি শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে ২৪ ঘন্টা হরতাল ডেকেছে। ইতিমধ্যে হেফাজতে ইসলাম জানিয়েছে হরতালের পরোয়া করে না।

এদিকে, সরকারের ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অধীনস্থ ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা যাতে লংমার্চে অংশগ্রহন করতে না পারে, তা সামনে রেখে নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

স্বরাষ্টমন্ত্রী মহিউদ্দীন খান আলমগীর সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, হেফাজতে ইসলামের ঢাকা অভিমুখে লংমার্চে কোনো বিশৃঙ্খলা হলে তার দায় ১৮ দলকে নিতে হবে। অন্যদিকে, লংমার্চে সমর্থন দানকারী বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সরকারকে অভিযুক্ত করে বলেন, সরকার মুক্তিযুদ্ধ ও ধর্মকে মুখোমুখি দাড় করিয়ে দিয়েছে।

এছাড়া নবগঠিত নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটির আহবায়ক ফরহাদ মজহার বলেন, শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চকে যেভাবে সরকার খাদ্য ও পানিসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দিয়ে নিরাপত্তা দিয়েছেন, হেফাজতে ইসলামের মার্চকে অনুরূপ নিরাপত্তা দিন।

ঘাদানিক হরতাল ডেকেছে: হেফাজতে ইসলামের লংমার্চের প্রতিবাদ এবং জামায়াতে ইসলামীকে নিষিদ্ধ করার দাবিতে কাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পর দিন শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার হরতাল পালন করবে আওয়ামীপন্থী ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি-ঘাদানিক, সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম এবং সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটসহ ২৫টি সংগঠন।

বৃহস্পতিবার রাতে এই হরতালের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ ব্যাপারে সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে আজ ঘোষণা দেয়া হবে বলে জানা গেছে।  এ দিকে ৬ এপ্রিল বাংলাদেশ ইসলামী জোট নামের আরো একটি সংগঠন হরতাল ডাকতে পারে বলে জানা গেছে।

হেফাজতে ইসলাম হরতালের পরোয়া করে না: এদিকে আওয়ামীপন্থীদের ডাকা হরতালে ‘পরোয়া নেই’ বলে জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের নেতৃবৃন্দ। তাদের দাবি হরতালের কারণে বাঁধাগ্রস্ত হওয়ার বদলে জনসমাগম বাড়বে। ছুটির দিনে সরকারদলীয়রা হরতাল ডাকার পরে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় জরুরী বৈঠকে যোগ দিয়ে হরতাল সম্পর্কে তারা এ মন্তব্য করেন। বুধবার রাত সাড়ে ১১ টার দিকে এ বৈঠক বসে।

এছাড়া সংগঠনটির আমির আল্লামা শফী লংমার্চ সফল করতে গতকাল ঢাকায় পৌছেছেন।ইসলামী ঐক্যজোটের প্রচার সম্পাদক মাওলানা ওয়াসেল বলেন, ‘আল্লামা আহমদ শফী আসন্ন লংমার্চকে সফল করতে এখন থেকে রাজধানীতে অবস্থান করবেন এবং এখান থেকে লংমার্চের বিষয়ে নেতাকর্মীদের সার্বিক দিক-নির্দেশনা দেবেন।’

ইসলামী ফাউন্ডেশন লংমার্চের দিন করবে সভা:  লংমার্চের দিনে ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রধান কার্যালয় থেকে দেশের সব জেলা কার্যালয়ে সকাল ১০টায় সারা দেশে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সমন্বয় সভা করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এই সভাতে ইসলামিক ফাউন্ডেশন পরিচালিত মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমে নিযুক্ত শিক্ষক ও লাইব্রেরিয়ানরা অংশ নিয়ে রেভিনিউ স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে বকেয়া বেতন নেবেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়ে এখন প্রতিটি জেলা কার্যালয়ের বিপুলসংখ্যক কর্মকর্তার প্রশিক্ষণ চলছে। নির্দেশনা অনুযায়ী ৬ এপ্রিল সমন্বয় সভা করা হচ্ছে কি না দেখার জন্য এসব কর্মকর্তাকে ভিন্ন ভিন্ন জেলায় পাঠানো হচ্ছে। ৬ এপ্রিলের মধ্যে প্রতিটি জেলায় তাদের পাঠানো হবে। আগে ভিন্ন ভিন্ন তারিখে সমন্বয় সভা হলেও এবার এক দিনে সারা দেশে একযোগে এই সভা করতে বলা হয়েছে। এ ছাড়া সব জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের ইমামদের নিয়ে মতবিনিময় সভা করে লংমার্চে অংশগ্রহণে নিরুৎসাহিত করতে বলা হয়েছে।

হেফাজতে ইসলাম নাটোরের অন্যতম নেতা অধ্যাপক মাওলানা আব্দুল হাকিম বলেছেন, নাটোর জেলার ইসলামিক ফাউন্ডেশন পরিচালিত মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমে নিয়োগপ্রাপ্ত ৫১৯ জন শিক্ষক ও লাইব্রেরিয়ানের ৬ এপ্রিল ঢাকা অভিমুখে লংমার্চে যাওয়া বন্ধ করতেই হঠাৎ করে এই সভা ডাকা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হুংকার: লংমার্চে সরকার পক্ষ বাধা দিবে না বললেও স্বরাষ্টমন্ত্রী মহিউদ্দীন খান আলমগীর পুরানো ভঙ্গিতেই নাশকতার কথা জানালেন।

তিনি বলেন,  হেফাজতে ইসলামের ঢাকা অভিমুখে লংমার্চে কোনো বিশৃঙ্খলা হলে তার দায় ১৮ দলকে নিতে হবে। তিনি বলেন, হেফাজতে ইসলামের ৬ এপ্রিলের লংমার্চ কর্মসূচিতে ১৮ দল গোষ্ঠীগত স্বার্থ উদ্ধারে যদি মিশে যায় তাহলে এটা তাদের ব্যাপার। তবে যদি কোনো বিশৃঙ্খলা হয়, সে ক্ষেত্রে তার দায়দায়িত্ব ১৮ দলের নেতাদের বহন করতে হবে।

গতকাল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে তিনি এ তথ্য জানান।

হেফাজতে ইসলামীর কর্মসূচিতে বিরোধী  জোটের নেতাকর্মীরা ব্যানার নিয়ে যোগ দিতে চাইলে তাদের বাঁধা  দেয়া হবে উল্লেখ করে তিনি জানান, এ কর্মসূচিতে বিএনপি, জামায়াত-শিবির বিশৃঙ্খলা করলে তা দমন করার জন্য রাষ্ট্রের পক্ষ  থেকে সর্বোচ্চ ব্যবস্থা নেয়া হবে। সরকারের সাথে হেফাজতে ইসলামীর সমঝোতার যে অভিযোগ করা হচ্ছে তাকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

সরকার মুক্তিযুদ্ধ ও ধর্মকে মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে: বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও ধর্মকে মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে। এটা আগুন নিয়ে খেলার শামিল। এ দেশের মানুষ ধর্মপ্রাণ; কিন্তু ধর্মান্ধ নয়। কিছু হলেই সরকার বলে যুদ্ধাপরাধের বিচার বানচালের ষড়যন্ত্র হচ্ছে। কিন্তু আপনারা তো যুদ্ধাপরাধের বিচার করছেন না, করছেন মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার। কে কিভাবে এটা বানচাল করছে? জাতীয় প্রেস কাবে গতকাল বুধবার এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। ‘সাহসী মানুষের ঐক্য চাই, আওয়ামী দুঃশাসনের ৫২ মাস, কেমন আছে বাংলাদেশ?’ শীর্ষক এ আলোচনার আয়োজন করে মুক্তিযোদ্ধা গণপরিষদ।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, সরকার এখন ’৭২-’৭৫-এর মতো একদলীয় শাসন কায়েমের অপচেষ্টা চালাচ্ছে। ’৭২-’৭৫-এর মতো লুটপাট আর দুঃশাসনে দেশের মানুষের দম বন্ধ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এ অবস্থায় সরকার জনগণের দৃষ্টি ভিন্ন দিকে প্রবাহিত করতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আর ধর্মকে মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে।

নাগরিক অধিকার রক্ষা চায় কাফেলার যাত্রাপথ সরকার বাঁধাহীন রাখুক: নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটির আহ্বায়ক কবি ও কলামিস্ট ফরহাদ মজহার বলেছেন, হেফাজতে ইসলামের লংমার্চ ঘিরে সহিংসতা, অশান্তি, হানাহানি, সঙ্ঘাত হলে এর দায় সরকারকে বহন করতে হবে।

তিনি আলেম-ওলামা ধর্মপ্রাণ মানুষের শান্তিপূর্ণ এমন কাফেলার যাত্রাপথ বাধাহীন ও নির্বিঘ্ন করার দাবি জানিয়ে বলেন, এই মুসাফিরদের থাকা-খাওয়ার উপযুক্ত আয়োজন করুন।

ফরহাদ মজহার বলেন, শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চকে যেভাবে সরকার খাদ্য ও পানিসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা দিয়ে নিরাপত্তা দিয়েছেন, হেফাজতে ইসলামের লংমার্চকে অনুরূপ নিরাপত্তা দিন।

গতকাল জাতীয় প্রেস কাবে নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটি আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ফরহাদ মজহার এ কথা বলেন।

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

হেফাজতে ইসলামের খবর

https://banglargangai.wordpress.com/wp-admin/widgets.php#available-widgets

ফরহাদ মজহারের কলাম

Join 253 other followers