এখন পড়ছেন
মামলা

একই দিনে ব্লগারদের নিয়ে আইনের সুপারিশ ও মামলা

JSফেসবুক ব্যবহারকারী ও ব্লগারদের নিয়ে যেসব ‘বিভ্রান্তি’ ছড়ানো হচ্ছে তা ঠেকানোর জন্য ‘সুনির্দিষ্ট’ আইন করার সুপারিশ করেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।  জানিয়েছে বাসস।

এদিকে আল্লাহ ও রাসুল (সা.) ও ইসলাম সম্পর্কে নানা কটূক্তি ও বিষোদগার করার অভিযোগে নাটোরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আসিফ মহিউদ্দিনসহ ৮ ব্লগার ও বিটিআরসি’র চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গতকাল মামলা দায়ের করা হয়। শহরের কানাইখালির চৌধুরীবাড়ির মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে এডভোকেট আমেল খান চৌধুরী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলার আসামিরা হলো, ব্লগার আসিফ মহিউদ্দিন, আরিফুর রহমান, ডাইনোসর, দাড়িপাল্লা, আলবার্ট আইনস্টাইন, এস দেওয়ান, ধর্মকারী, ইসলামের কাম ও কামকলি মূলরচনাকারী আবুল কাশেম, অনুবাদক খেলারাম পাঠক এবং বিটিআরসির চেয়ারম্যান।

মামলা শেষে বাদী আমেল খান চৌধুরী বলেন, শতকরা ৯৫ভাগ মুসলমানের দেশে মহান আল্লাহ ও রাসুল (সা.) এবং ইসলাম সম্পর্কে কটূক্তি করে চরম ধৃষ্টতা প্রদর্শন করা হয়েছে এবং সকল মুসলমানের হৃদয়ে আঘাত করা হয়েছে।

সম্প্রতি মানবতাবিরোধী অপরাধীদের ফাঁসি ও জামায়াত নিষিদ্ধসহ ছয় দফা দাবিতে সরকার সমর্থক তরুণদের আন্দোলনে বেশ কয়েকজন ব্লগারের সম্পৃক্ততার খবর বেরিয়ে আসে। ওসব ব্লগাররা ইসলাম ও মুসলমানদের বিরুদ্ধে ঘৃণা-বিদ্বেষমূলক কুরুচিপূর্ণ লেখালিখি করেন বলে বেশ কিছু গণমাধ্যম খবর প্রকাশ করছে। এদের বিরুদ্ধে দেশের ধর্মীয় নেতাদের আন্দোলনও জনপ্রিয়তা পেয়েছে বলে দেখা যাচ্ছে। এমনই একটি ধর্মীয় গোষ্ঠি- হেফাজতে ইসলামের প্রতিরোধের মুখে সম্প্রতি সরকার সমর্থক তরুণরা চট্টগ্রামে ‘গণজাগরণ মঞ্চে’র ব্যানারে সমাবেশ করতে পারেনি।

ফেসবুকে একজনের নামে অন্যজন একাউন্ট খুলে ধর্ম নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যকারীদের এই আইনের আওতায় আনার জন্যও বলেছে কমিটি।  বুধবার সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির সভায় এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। সংসদীয় কমিটির সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদের সভাপতিত্বে অংশগ্রহণকারীরা ব্লগারদের নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। এসময় কমিটির সদস্য তথ্য ও যোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ, জুনাইদ আহমেদ পলক, ফজিলাতুন নেসা এবং সৈয়দা আশিফা আশরাফী পাপিয়া বৈঠকে অংশ নেন।

এছাড়া তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি সচিব নজরুল ইসলাম খানসহ (এন আই খান) সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে কমিটির সভাপতি আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, ফেসবুক ও ব্লগে সাম্প্রতিক সময়ে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে উন্মাদনা তৈরি হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোকে অপব্যবহার করা হচ্ছে। বিদ্যামান আইনে এগুলো বন্ধ করা যায় কিনা তা কমিটিকে জানানোর জন্য বলা হয়েছে

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

হেফাজতে ইসলামের খবর

https://banglargangai.wordpress.com/wp-admin/widgets.php#available-widgets

ফরহাদ মজহারের কলাম

Join 253 other followers