এখন পড়ছেন
খবর

হরতাল, লংমার্চ, মানববন্ধনসহ ইসলামপন্থীদের মাসব্যাপী কর্মসূচি

ব্লগারদের প্রতিহত করতে চট্টগ্রামে বুধবার ১৩ মার্চ সকাল-সন্ধ্যা হরতাল ডেকেছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। ওই দিন চট্টগ্রাম নগরের জামালখানের গণজাগরণ মঞ্চে মহাসমাবেশ হওয়ার কথা রয়েছে। এই সমাবেশে ঢাকার শাহবাগের গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারসহ অন্যদের যোগ দেওয়ার কথা। এছাড়া মাসব্যাপী অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে ১২ মার্চ উপজেলায় মানববন্ধন,  ১৫ মার্চ বাদ জুমা বিক্ষোভ মিছিল, ২২ মার্চ সব মসজিদে ১ ঘণ্টা অবস্থান, ২৫ মার্চ উপজেলা পরিষদ ঘেরাও ও ৬ এপ্রিল ঢাকা অভিমুখে লংমার্চ।

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে  শনিবার দেশের শীর্ষ আলেম দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার মহাপরিচালক, বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড (বেফাক) চেয়ারম্যান এবং হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির, পীরে কামেল শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফীর আহ্বানে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপী জাতীয় ওলামা-মাশায়েখ সম্মেলন থেকে এই ঘোষণা দেয়া হয়।

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মঈনুদ্দিন রূহী বলেন, শাহবাগে ইসলাম অবমাননাকারী নাস্তিক ব্লগারদের প্রতিহত করতেই চট্টগ্রামে এ হরতালের ডাক দেওয়া হয়েছে। তবে ইমরান এইচ সরকারসহ অন্যরা না এলে হরতাল প্রত্যাহার করা হবে বলেও ইঙ্গিত দেন রূহী। পাশাপাশি চট্টগ্রামে ইমরান এইচ সরকারসহ নাস্তিক ব্লগারদের অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে হেফাজতে ইসলামের পক্ষ থেকে। ওই দিনের হরতালে মুফতি ইজাহারুল ইসলামের নেজামে ইসলামী পার্টিসহ অন্যদের সমর্থনও রয়েছে।

সম্মেলনে দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব ও জনসাধারণের জান-মাল রায় বর্তমান চরম প্রতিকূল সময়ে সমগ্র ওলামায়ে কেরাম ও তৌহিদি জনতার ঐক্যবদ্ধ কর্মসূচি নেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়। তারা দ্বীন-ইসলাম, ঈমান, আল্লাহ, রাসূল (সা.) সম্পর্কে কুৎসা রটনাকারী ব্লগারদের কঠোর শাস্তি এবং সরকারের ইসলামবিরোধী বিভিন্ন কর্মকাণ্ড বন্ধের দাবিতে গৃহীত মাসব্যাপী কর্মসূচি ছাড়াও নাস্তিকদের পৃষ্ঠপোষক সংবাদপত্র ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার মালিকদের প্রতিষ্ঠানে উৎপাদিত পণ্য বর্জনের জন্য ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। সম্মেলনে ৬ এপ্রিলের লংমার্চে বাধা দিলে পরদিন থেকে লাগাতার হরতাল ঘোষণা করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেয়া হয়।

আল্লামা শাহ্ আহমদ শফীর সভাপতিত্বে এবং হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব মাওলানা হাফেজ মুহাম্মদ জুনায়েদ বাবুনগরীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমির মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, মুহাদ্দিস মাওলানা হাফেজ শামসুল আলম, মাওলানা আব্দুল মালেক হালিম, হাটহাজারী মাদরাসার শিাপরিচালক মাওলানা মুহাম্মদ হারুন, ইসলাম, ঈমান ও দেশ রা আন্দোলনের আহ্বায়ক মাওলানা নূর হোসেন কাসেমী, খেলাফত মজলিসের আমির মাওলানা মুহাম্মদ ইসহাক, নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি মুফতি ইজহারুল ইসলাম চৌধুরী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির মাওলানা সৈয়দ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই, ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী, জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের মহাসচিব সাবেক মন্ত্রী মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, খেলাফত আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, খতমে নবুওয়াতের সেক্রেটারি মাওলানা হাফেজ নূরুল ইসলাম, জামিয়া ইসলামিয়া পটিয়ার মুফতি আব্দুল হালিম বোখারী, মধুপুরের পীর সাহেব মাওলানা আব্দুল হালিম, প্রখ্যাত মুফাসসিরে কুরআন মাওলানা মোস্তফা আল-হোসাইনী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাওলানা সাজেদুর রহমান, নাজিরহাট বড় মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মোহাম্মদ ইদ্রিস, ফিরোজশাহ্র পীর মাওলানা হাফেজ তাজুল ইসলাম, বসুন্ধরা ইসলামিক রিসার্চ সেন্টারের মুফতি এনামুল হক, নানুপুর ওবায়দিয়া মাদরাসার পরিচালক মাওলানা সালাহ উদ্দীন নানুপুরী, মাওলানা জুনায়েদ আল-হাবীব ঢাকা, জামেয়া রহমানিয়া ঢাকার প্রিন্সিপাল মাওলানা মাহফুজুল হক, মাদানীনগর মাদরাসার মাওলানা ফয়জুল্লাহ সন্দ্বীপী, ইত্তিফাকুল উলামা ময়মনসিংহের সভাপতি মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ্ সাদী, জিরি মাদরাসার মাওলানা লুৎফর রহমান, মুফতি মিজানুর রহমান সাঈদ, মাওলানা আব্দুর রব ইউসুফী, ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতি মুহাম্মদ ফয়জুল্লাহ, মুফতি আমিনীর ছেলে মাওলানা আবুল হাসনাত আমিনী, মাওলানা মুহাম্মদ আনাস ভোলা, মেখল মাদরাসার মাওলানা মুহাম্মদ নোমান, মাওলানা আব্দুল জাব্বার জেহাদী রাজশাহী, ফেনী ওলামা বাজার মাদরাসার মুফতি শিব্বির আহ্মদ, নেত্রকোনার মাওলানা মনসুরুল হক খান, জামিয়া ইউনুসিয়া বি-বাড়িয়ার মুফতি আব্দুর রহীম, নোয়াখালীর মাওলানা মুহাম্মদ সফি উল্লাহ, জামিয়া মাদানীয়া ফেনীর মাওলানা সাইফুদ্দীন, সিলেটের মাওলানা এনামুল হক, কক্সবাজারের মাওলানা হাফেজ সালামত উল্লাহ, হবিগঞ্জের মাওলানা মাসরুরুল হক, চট্টগ্রাম মোজাহেরুল উলুমের মাওলানা লোকমান হাকীম, মাওলানা মাহমুদুল হাসান ফতেহপুরী, মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম নীলফামারী, মুফতি জসীম উদ্দীন, মাওলানা মুহাম্মদ ওমর, মাওলানা আশরাফ আলী নিজামপুরী, ইসলামী ঐক্যজোট চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি মাওলানা মুঈনুদ্দীন রুহী, হেফাজতে ইসলামের প্রচার সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ আনাস মাদানী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, ইসলামী আন্দোলনের মহাসচিব মাওলানা ইউনুস আহমদ, নরসিংদীর মাওলানা আলী আহমদ কাসেমী, খুলনার মাওলানা আতাউর রহমান, বাগেরহাটের মাওলানা আমিনুল ইসলাম প্রমুখ। সম্মেলনে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর উপস্থিতিতে তার লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সাহেবজাদা মাওলানা মুহাম্মদ আনাস মাদানী।

Advertisements

আলোচনা

কোন মন্তব্য নেই এখনও

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

হেফাজতে ইসলামের খবর

https://banglargangai.wordpress.com/wp-admin/widgets.php#available-widgets

ফরহাদ মজহারের কলাম

Join 253 other followers